আজ মঙ্গলবার, ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ১২ ডিসেম্বর ২০১৭ খ্রিস্টাব্দ
 / আন্তর্জাতিক / ইয়েমেন গৃহযুদ্ধ থেকে সৌদির ফিরে আসার পথ রুদ্ধ: বিভক্তি ও দ্বন্দ্বের নতুন সমীকরণ
ইয়েমেন গৃহযুদ্ধ থেকে সৌদির ফিরে আসার পথ রুদ্ধ: বিভক্তি ও দ্বন্দ্বের নতুন সমীকরণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক:
Published : Tuesday, 5 December, 2017 at 3:15 AM, Count : 90
ইয়েমেন গৃহযুদ্ধ থেকে সৌদির ফিরে আসার পথ রুদ্ধ: বিভক্তি ও দ্বন্দ্বের নতুন সমীকরণমধ্যপ্রাচ্যের যুদ্ধ পরিস্থিতি নতুন মোড় নিল। বিশেষ করে সৌদি জোটের আগ্রাসন বিস্তারের আরও সুযোগ করে দিল ইয়েমেনের হুথিরা। হুথিদের সঙ্গে মিত্রতা ছাড়ার ঘোষণার অল্প কয়েক ঘণ্টা পরেই নিহত হন ইয়েমেনর সাবেক প্রেসিডেন্ট আলী আব্দুল্লাহ সালেহ। সোমবার (৪ ডিসেম্বর) সকালের দিকে সানায় আলী আব্দুল্লাহ সালেহের বাসভবনে হামলা করে হুথিরা।
ইয়েমেনের বর্তমান প্রেসিডেন্ট মনসুর হাদিকে গদিচ্যুত করতে এই হুথিদের সাহায্য নিয়েছিলেন আলী আব্দুল্লাহ সালেহ। ইরানের মদদপুষ্ট শিয়া বিদ্রোহীদের সাহায্যে মনসুর হাদির আসন কাঁপিয়েও দিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু, সেই মিত্র হুথি বিদ্রোহীদের হাতেই প্রাণ হারালেন সালেহ।
বিশ্লেষকরা বলছেন, ‘সালেহের হত্যায় বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে সৌদি-নেতৃত্বাধীন জোটের লড়াই আরও বেশি তীব্রতর হয়ে ওঠবে।’ 
ইয়েমেন পোস্টের প্রধান সম্পাদক হাকিম আল মাসমারী বলেন, ‘হুথি যোদ্ধাদের হাতে তাদেরই এক সময়কার মিত্র সালেহের মৃত্যু তার বাহিনীর জন্য বড় ধরণের আঘাত।’
ইয়েমেন গৃহযুদ্ধ থেকে সৌদির ফিরে আসার পথ রুদ্ধ: বিভক্তি ও দ্বন্দ্বের নতুন সমীকরণইয়েমেনের রাজধানী সানা থেকে আল জাজিরাকে তিনি বলেন, ‘গত দুই দিন ধরে তাঁর বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখে হুথিরা এবং আজ তাতে হামলা চালায় তারা। তিনি (সালেহে) পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়েছিলেন। কিন্তু হুথিদের চেকপয়েন্টে এক সংঘর্ষে তিনি নিহত হন। সেখানে একটা গাড়িতে তার লাশ পাওয়া গেছে।  তার সাথে নিহত হন তার কয়েকজন প্রধান সহকর্মীও।’
তিন দশকেরও বেশি সময় ধরে ইয়েমেন শাসন করেছেন সালেহে। বর্তমান গৃহযুদ্ধ পরিস্থিতি ও রাজনৈতিক সংকটে গুরুত্বপূর্ণ অবস্থান ছিল তার। ইয়েমেনের ওপর হামলা চালানোর জন্য শনিবার এক টেলিভিশন বক্তৃতায় সৌদি জোটকে আহবান করেছিলেন তিনি।
একই সাথে সালেহ হুথি বিদ্রোহীদের সাথে আনুষ্ঠানিকভাবে সম্পর্ক ছিন্ন করেন। তিনি সামরিক জোটের সাথে সংলাপের জন্য আহবান করেন, যারা দুই বছর ধরে বিদ্রোহী জোটের সাথে যুদ্ধ করছিল। 
সালেহের এ ঘোষণায় সৌদি আরব প্রশংসা করলেও হুথিরা তার এ পক্ষাবলম্বনকে বড় ধরণের 'আঘাত' হিসেবে দেখে।
২০১৫ সালে হাদিকে হুথিরা ক্ষমতা থেকে উৎখাত করে। সে বছরই সৌদি আরব মধ্যপ্রাচ্যের অন্যান্য সুন্নি মুসলিম দেশ মিলে ইয়েমেনের প্রেসিডেন্ট আবদ-রব্বু মনসুর হাদি সরকারকে ক্ষমতা ফিরিয়ে দেয়ার জন্য দেশটিতে সামরিক হস্তক্ষেপ করে। তাদের পক্ষে আছে যুক্তরাষ্ট্রের প্রবল সমর্থন। এ বছরই সৌদি আরব সফর গিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সৌদি জোটের পাশে থাকার ঘোষণা দেন।
ইয়েমেন গৃহযুদ্ধ থেকে সৌদির ফিরে আসার পথ রুদ্ধ: বিভক্তি ও দ্বন্দ্বের নতুন সমীকরণসেসময় সালেহের দুর্বল জোটের সাথে হুথিরা যুক্ত হলে শক্তিশালী অবস্থানে চলে যান তিনি। তার জেনারেল পিপলস কংগ্রেস পার্টি(জিপিসি) এবং হুথি আনসারাল্লাহ জোটের মধ্যে সম্পর্কের নতুন মেরুকরণ সৃষ্টি হয়। যদিও এক সময় এক পক্ষ অন্য পক্ষের বিরোধী ছিল। 
মাসমারি বলছেন, ‘সালেহের মৃত্যু দেশটিতে সৌদি জোটের হামলা আরও জোরদার হবে। দুই পক্ষের মধ্য বিভক্তিতে সৌদি জোট হুথি নিয়ন্ত্রিত এলাকায় আরও বেশি বিমান হামলা চালাবে। বিশেষ করে বিমানবন্দর ও সরকারি মন্ত্রণালয়গুলোকে লক্ষ্যবস্তু বানাবে।’ 
ইন্টারন্যাশনাল ক্রাইসিস গ্রুপের মধ্যপ্রাচ্যের প্রোগ্রাম ডিরেক্টর জোওস্ট হিলটারমান বলেন, ‘হুথি ও সালেহ জোটের এ বিভক্তি প্রতিশোধের পর্যায় থেকে আরও বেশি বিভক্তি ও দ্বন্দ্ব বাড়িয়ে তুলবে। সালেহের বাহিনী যে কোন মুহুর্তে হুথি বিরোধী দলের সাথে যোগ দিতে পারে।’
তিনি বলেন, ‘সালেহের ঘোষণার মধ্য দিয়ে পরিস্থিতি যে উন্নতির দিকে যাচ্ছিল বিশেষ করে সৌদি জোটের পক্ষে,  যাতে আরব আমিরাতের বিশেষ ভূমিকা ছিল। তারা আশা করেছিল, সালেহের মাধ্যমে হুথিদের নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসতে পারা যাবে। কিন্তু ঘটনা মোড় নিয়ে গেছে ভিন্ন দিকে। এর মাধ্যমে হুথিদের সামরিক শক্তিকে পুরোপুরি ধ্বংস করে দেয়ার পথ বের হয়ে আসল মূলত।’
হিলটারমানের মতে, ‘যদি তারা আকাশপথে হামলা দ্বিগুণ করে তাহলে দেশটির বেসামরিক জনগণ ক্ষতিগ্রস্ত হবে বেশি। ইতিমধ্যে সবচেয়ে বড় মানবিক বিপর্যয় দেখা দিয়েছে সেখানে।’
যুদ্ধ শুরু হবার পর থেকে এ বছরের অক্টোবর মাস পর্যন্ত দেখা গেছে, সেখানে ৮০ শতাংশ ঘরবাড়ি ধ্বংস হয়ে গেছে। তাদের বেঁচে থাকার জন্য সামান্য অবলম্বনটুকুও অবশিষ্ট নেই। যদিও আন্তর্জাতিক চাপে সাম্প্রতিক দেশটির বন্দর খুলে দিয়েছে সৌদি জোট।
সৌদি জোটের হামলায় সেখানের চিকিৎসা ব্যবস্থা পুরোপুরি ধসে গেছে। সাম্প্রতিক বিশ্বের সবচেয়ে বড় কলেরা মহামারি ছড়িয়ে পড়েছে দেশটিতে। ইতিমধ্যে কয়েক লাখ লোক কলেরায় আক্রান্ত হয়েছে। মারা গেছে কয়েক হাজার।
লন্ডন কিংস কলেজের রাজনৈতিক বিশ্লেষক এন্ড্রিজ ক্রেইগ বলেন, ‘খুব অল্প সময়ের মধ্যেই পূর্বের পরিস্থিতির চেয়েও আরও বেশি ব্যর্থ রাষ্ট্রের দিকে চলে  যাবে ইয়েমেন।’
এ বছরের শুরুতে ফাঁস হওয়া কিছু ইমেল বার্তায় দেখা যায়, প্রাক্তন এক মার্কিন কর্মকর্তার সাথে কথা বলার সময় সৌদি আরব ইয়েমেন যুদ্ধের ইতি টানার ইচ্ছা প্রকাশ করে।
তিনি বলেন, ‘সালেহ ছিলেন যোগ্য সমন্বয়ক। তাকে হত্যা করে হুথি বিদ্রোহীরা সমীকরণ পাল্টে দিয়েছে।’ তিনি আরও যোগ করেন, ‘সৌদি আরব চাচ্ছিল 'ব্যয়বহুল' এ যুদ্ধের ইতি টানতে। কিন্তু এখন যুদ্ধ থেকে তাদের ফিরে আসার কোন পথ নাই।’
(কাতার ভিত্তিক আল জাজিরার প্রতিবেদন অবলম্বনে)


« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ
 
কাতার-সৌদি আরবে খালেদা জিয়ার সম্পদের খবর মিথ্যা-বানোয়াট: মধ্যেপ্রাচ্যে বিএনপি
কাতার-সৌদি আরবে খালেদা জিয়ার সম্পদের খবর মিথ্যা-বানোয়াট: মধ্যেপ্রাচ্যে বিএনপি
সৌদি আরবে ও কাতারে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া এবং আরাফাত রহমান কোকোর বিপুল পরিমান অর্থ পাচারের দাবি করে অবৈধ ...
প্রতিপক্ষের বেধরক পিটুনিতে খুন হলেন সংখ্যালঘু পরিবারের এক বয়োবৃদ্ধ কৃষক !
প্রতিপক্ষের বেধরক পিটুনিতে খুন হলেন সংখ্যালঘু পরিবারের এক বয়োবৃদ্ধ কৃষক !
জমিতে সেচ দিতে গিয়ে সুনামগঞ্জের বিশ্বম্ভরপুরে প্রতিপক্ষের লোকজনের বেধরক পিটুনিতে সোমবার নির্মম ভাবে খুন হয়েছেন সংখ্যালঘু পরিবারের এক বয়োবৃদ্ধ কৃষক। ...
জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নারায়ণগঞ্জ-৪ ও ৫ আসনে বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টি প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে
জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নারায়ণগঞ্জ-৪ ও ৫ আসনে বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টি প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে
বাংলাদেশের বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির নারায়ণগঞ্জ জেলা কমিটি আয়োজিত প্রতিনিধি সভাতে বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির কেন্দ্রীয় পলিট ব্যুরোর অন্যতম সদস্য জননেতা কমরেড ...
এনইউবিটি খুলনাতে বির্তক প্রতিযোগীতার চুড়ান্ত পর্ব অনুষ্ঠিত
এনইউবিটি খুলনাতে বির্তক প্রতিযোগীতার চুড়ান্ত পর্ব অনুষ্ঠিত
নর্দান ইউনিভার্সিটি অব বিজনেস এন্ড টেকনোলজি খুলনায় আন্তঃ ডিপার্টমেন্ট বির্তক প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। গত ২৫ নভেম্বর থেকে শুরু হওয়া ...
রিভ অ্যান্টিভাইরাস পেল অ্যাপিকটা ফার্স্ট মেরিট অ্যাওয়ার্ড
রিভ অ্যান্টিভাইরাস পেল অ্যাপিকটা ফার্স্ট মেরিট অ্যাওয়ার্ড
এশিয়া প্যাসিফিক আইসিটি অ্যালায়েন্স (অ্যাপিকটা) মেরিট অ্যাওয়ার্ড পেয়েছে বাংলাদেশের রিভ অ্যান্টিভাইরাস। সিকিউরিটি ক্যাটাগরিতে ১৬টি দেশের বিভিন্ন প্রতিযোগীদের মধ্য থেকে এই ...
চতুর্থ শ্রেণীর স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণ করতে গিয়ে সুনামগঞ্জে জেলা শ্রমিক লীগ নেতা কারাগারে!
চতুর্থ শ্রেণীর স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণ করতে গিয়ে সুনামগঞ্জে জেলা শ্রমিক লীগ নেতা কারাগারে!
চতুর্থ শ্রেণীর স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণ করতে গিয়ে সুনামগঞ্জ  জেলা শ্রমিক লীগের এক নেতাকে সোমবার আদালত জেলা কারাগারে পাঠিয়েছেন।’ অভিযুক্ত’র নাম, ...
১৫কেভি’র ১৪টি ট্রান্সফরমার রহস্য জনক ভাবে উধাও
১৫কেভি’র ১৪টি ট্রান্সফরমার রহস্য জনক ভাবে উধাও
ঝালকাঠি পল্লী বিদ্যুত সমিতির ষ্টোর কিপারের আওতাধীন ১২ লক্ষাধিক টাকা মূল্যের ১৪টি ট্রান্সফরমার উধাও হওয়ার ঘটনা উদঘাটনে জন্য সমিতির উর্ধতন ...
পুরান ঢাকায় প্রতিবন্ধী শিশুদের জন্য স্কুল 'পাখি'
পুরান ঢাকায় প্রতিবন্ধী শিশুদের জন্য স্কুল 'পাখি'
প্রতিবন্ধী শিশুদের জন্য পুরান ঢাকায় চালু হয়েছে বিশেষ স্কুল 'পাখি'। একটি স্বয়ংসপন্ন থেরাপি ভিত্তিক বিশেষ স্কুল পুরান ঢাকার অভিভাবকদের দীর্ঘদিনের ...
গ্রামেও এখন মোবাইলে গেম খেলা নেশায় আসক্ত
গ্রামেও এখন মোবাইলে গেম খেলা নেশায় আসক্ত
গ্রামাঞ্চলে তরুণ প্রজন্মের ছেলেরা এখন খুব মজা করছে। তবে এ মজা শুধু যে গ্রামেই হচ্ছে তা কিন্তু নয়, শহরেও হচ্ছে। ...
১০
সুদের টাকা আদায়ে মোটর মেকানিককে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় মামলা দায়ের
সুদের টাকা আদায়ে মোটর মেকানিককে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় মামলা দায়ের
সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি: সুদের টাকা আদায় করতে গিয়ে সুনামগঞ্জের তাহিরপুরে এক মোটর মেকানিককে আটকে রেখে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগে রবিবার রাতে থানায় ...
 
পুলিশের উপস্থিতিতে ৬ মাসের সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামীকে মঞ্চে নিয়ে এমপি রতনের সমাবেশ
পুলিশের উপস্থিতিতে ৬ মাসের সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামীকে মঞ্চে নিয়ে এমপি রতনের সমাবেশ
থানা পুলিশ ও এক উপমন্ত্রির উপস্থিতিতে থানা চত্বরে ৬ মাসের সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামীকে মঞ্চে নিয়ে সুনামগঞ্জ-১ আসনের সংসদ মোয়াজ্জেম হোসেন ...
সুস্থ্য বিনোদনের অঙ্গিকারে ঠাকুরগাঁওয়ে যাত্রা শুরু করল “মোহিনী তাজ”
সুস্থ্য বিনোদনের অঙ্গিকারে ঠাকুরগাঁওয়ে যাত্রা শুরু করল “মোহিনী তাজ”
ঠাকুরগাঁও শহর থেকে প্রায় ১২ কি:মি: উত্তর-পশ্চিমে আখানগর ইউনিয়নের চতুরাখোড় মাধবীকুঞ্জ নামক স্থানে ব্যক্তি উদ্যোগে নির্মাণ করা হয়েছে “মোহিনী তাজ” ...
কুমিল্লার ১৫ ইউনিয়নে আ’লীগের চূড়ান্ত মনোনয়ন পেলেন যারা
কুমিল্লার ১৫ ইউনিয়নে আ’লীগের চূড়ান্ত মনোনয়ন পেলেন যারা
আসন্ন ইউনিয়ন (ইউপি) নির্বাচনে কুমিল্লায় ১৫টি ইউনিয়নে দলীয় প্রার্থীর নাম ঘোষণা করেছে ক্ষমতাসীন আওয়ামীলীগ। শুক্রবার (২৪ নভেম্বর) রাতে প্রধানমন্ত্রী শেখ ...
উপস্থাপিকা থেকেই নায়িকা চরিত্রে শারমিন প্রীতি
উপস্থাপিকা থেকেই নায়িকা চরিত্রে শারমিন প্রীতি
সাভারের মেয়ে প্রীতি পড়া শুনার পাশা পাশি অভিনয়ে জগতে ছুটছেন খুব ধীর গতিতে। তিনি বেছে বেছেই অনেক কাজ করছেন। তাছাড়া ...
জিয়া পরিবারের জনপ্রিয়তায় ভয় পেয়ে সরকার অসত্য তথ্য পরিবেশন করছে: সৌদিআরব বিএনপি
জিয়া পরিবারের জনপ্রিয়তায় ভয় পেয়ে সরকার অসত্য তথ্য পরিবেশন করছে: সৌদিআরব বিএনপি
অনৈতিক ও অবৈধ ভাবে ক্ষমতা দখলকারী আওয়ামী সরকারের প্রধানমন্ত্রী কম্বোডিয়া সফর শেষে গত ৭ ডিসেম্বর সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম ...
তালতলীতে আটককৃত জাটকা ইলিশ ইউএনও’র ফ্রিজে
তালতলীতে আটককৃত জাটকা ইলিশ ইউএনও’র ফ্রিজে
উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো. শামীম রেজা ২৪ নভেম্বর তালতলী মাছ বাজারে অভিযান চালিয়ে অবৈধ জাটকা উদ্ধার করে। মৎস্য কর্মকর্তা মাছগুলি ...
ঠাকুরগাঁওয়ে কর্মী সমাবেশ সফল করায় স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতির অভিনন্দন
ঠাকুরগাঁওয়ে কর্মী সমাবেশ সফল করায় স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতির অভিনন্দন
বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের কর্মী সমাবেশ সফল করার জন্য সংগঠনের সকল নেতা কর্মী সমর্থক ও সম্পৃক্ত সকলকে প্রানঢালা অভিনন্দন ও ...
বরিশাল অঞ্চলের মাদক সম্রাট জাহিদের নতুন ঘাঁটি আমিরাবাদের আরেক সম্রাট আ’লীগ নেতার আস্তানায়
বরিশাল অঞ্চলের মাদক সম্রাট জাহিদের নতুন ঘাঁটি আমিরাবাদের আরেক সম্রাট আ’লীগ নেতার আস্তানায়
বৃহত্তর বরিশাল অঞ্চলের মাদক সম্রাট খ্যাত জাহিদের নতুন ঠিকানা এখোন ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলাধীন আরেক মাদক ব্যবসায়ী খ্যাত আ’লীগ নেতার নিরাপদ ...
অবৈধভাবে বসবাস ও কাজ করার দায়ে যুক্তরাজ্যে ১০ বাংলাদেশি আটক
অবৈধভাবে বসবাস ও কাজ করার দায়ে যুক্তরাজ্যে ১০ বাংলাদেশি আটক
ব্রিটেনে বৈধ কাগজপত্র ছাড়া কাজ করার দায়ে ১০ জন বাংলাদেশিকে আটক করেছে ইউনাইটেড কিংডম বর্ডার এজেন্সি (ইউকেবিএ)। এ মাসে ব্রিটেনের ...
১০
ঢাকা দক্ষিণ আ. লীগের কোন্দাল নিয়ে বৈঠকে মেয়র ও মুরাদ একে অপরকে আক্রমণ
ঢাকা দক্ষিণ আ. লীগের কোন্দাল নিয়ে বৈঠকে মেয়র ও মুরাদ একে অপরকে আক্রমণ
আওয়ামী লীগের ঢাকা মহানগর দক্ষিণের কোন্দল নিরসনে বসে মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন ও শাহে আলম মুরাদ একে অপরকে আক্রমণ করে ...
ইউসুফ আহমেদ (তুহিন)
৭৯/বি, ব্লক বি, এভিনিউ ১, সেকশান ১২, মিরপুর, ঢাকা ১২১৬, বাংলাদেশ
বার্তাকক্ষ : +৮৮০১৯১৫৭৮৪২৬৪, ই-মেইল editor@natun-barta.com, Web : www.Natun-Barta.com.com